সিলেট ১০:৪৯ অপরাহ্ন, শনিবার, ১৫ জুন ২০২৪, ১ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ফেঞ্চুগঞ্জ, বালাগঞ্জ ও বিয়ানীবাজারে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হলেন যারা

ক্লিক সিলেট ডেস্ক
  • প্রকাশ: ১০:১০:৪৫ অপরাহ্ন, বুধবার, ২৯ মে ২০২৪
  • / ২৭ বার পড়া হয়েছে
ফেঞ্চুগঞ্জ, বালাগঞ্জ ও বিয়ানীবাজারে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হলেন যারা

শেষ হলো ষষ্ঠ উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের তৃতীয় ধাপের ভোটগ্রহণ প্রক্রিয়া। তৃতীয় ধাপে সিলেটের তিন উপজেলা ফেঞ্চুগঞ্জ, বালাগঞ্জ ও বিয়ানীবাজার উপজেলায় বুধবার (২৯ মে) ভোট গ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়।

তিন উপজেলার মধ্যে বিয়ানীবাজার উপজেলায় চেয়ারম্যান পদে বিজয়ী হয়েছেন আবুল কাশেম পল্লব, বালাগঞ্জে মো. আনহার মিয়া ও ফেঞ্চুগঞ্জ উপজেলায় আশফাকুল ইসলাম সাব্বির।

জানা যায়, বিয়ানীবাজার উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান, পুরুষ ও মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে মোট ২১ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেছেন। এর মধ্যে চেয়ারম্যান পদে ৯ জন, পুরুষ ভাইস চেয়ারম্যান পদে ৮ জন ও মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে ৪ জন প্রার্থী ছিলেন। এর মধ্যে চেয়ারম্যান পদে হেলিকপ্টার প্রতীক নিয়ে নির্বাচন করা উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও বর্তমান উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মো. আবুল কাশেম পল্লব ২০ হাজার ১শ ৯৩ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী মো. গৌছ উদ্দিন শালিক পাখি প্রতীকে পেয়েছেন ১৮ হাজার ৫শ ৬০ ভোট। তিনি লাউতা ইউপি’র সাবেক চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগ নেতা।

ফেঞ্চুগঞ্জ উপজেলা পরিষদের ৩ চেয়ারম্যান পদে ১৩ জন প্রার্থী ছিলেন। এর মধ্যে চেয়ারম্যান পদে ৫ জন, ভাইস চেয়ারম্যান (পুরুষ) পদে ৫ জন এবং মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে ৩ জন ভোটযুদ্ধে ছিলেন। এর মধ্যে চেয়ারম্যান পদে আনারস প্রতীকে নির্বাচন করা ফেঞ্চুগঞ্জ উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি আশফাকুল ইসলাম সাব্বির ১২ হাজার ৫শ ৫৮টি ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী হলেন কাপ পিরিচ প্রতীকে নির্বাচন করা উপজেলা পরিষদের বর্তমান চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা নুরুল ইসলাম। তাঁর প্রাপ্ত ভোট সংখ্যা ১২ হাজার ৪টি।

বালাগঞ্জ উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে ৩ পদে প্রার্থী সংখ্যা ছিলেন ১১ জন। এর মধ্যে চেয়ারম্যান পদে ৩ জন, পুরুষ ভাইস চেয়ারম্যান পদে ৫ জন ও মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে ৩ জন প্রার্থী লড়েছেন। এর মধ্যে আনারস প্রতীক নিয়ে নির্বাচন করা বালাগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মো. আনহার মিয়া ২০ হাজার ৮শ ৩৪ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী কাপ পিরিচ প্রতীকে বালাগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মো. মোস্তাকুর রহমান মফুর পেয়েছেন ১৮ হাজার ৬শ ৮৬টি ভোট।

সংবাদটি ভালো লাগলে স্যোশাল মিডিয়ায় শেয়ার করুন

ফেঞ্চুগঞ্জ, বালাগঞ্জ ও বিয়ানীবাজারে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হলেন যারা

প্রকাশ: ১০:১০:৪৫ অপরাহ্ন, বুধবার, ২৯ মে ২০২৪
ফেঞ্চুগঞ্জ, বালাগঞ্জ ও বিয়ানীবাজারে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হলেন যারা

শেষ হলো ষষ্ঠ উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের তৃতীয় ধাপের ভোটগ্রহণ প্রক্রিয়া। তৃতীয় ধাপে সিলেটের তিন উপজেলা ফেঞ্চুগঞ্জ, বালাগঞ্জ ও বিয়ানীবাজার উপজেলায় বুধবার (২৯ মে) ভোট গ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়।

তিন উপজেলার মধ্যে বিয়ানীবাজার উপজেলায় চেয়ারম্যান পদে বিজয়ী হয়েছেন আবুল কাশেম পল্লব, বালাগঞ্জে মো. আনহার মিয়া ও ফেঞ্চুগঞ্জ উপজেলায় আশফাকুল ইসলাম সাব্বির।

জানা যায়, বিয়ানীবাজার উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান, পুরুষ ও মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে মোট ২১ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেছেন। এর মধ্যে চেয়ারম্যান পদে ৯ জন, পুরুষ ভাইস চেয়ারম্যান পদে ৮ জন ও মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে ৪ জন প্রার্থী ছিলেন। এর মধ্যে চেয়ারম্যান পদে হেলিকপ্টার প্রতীক নিয়ে নির্বাচন করা উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও বর্তমান উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মো. আবুল কাশেম পল্লব ২০ হাজার ১শ ৯৩ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী মো. গৌছ উদ্দিন শালিক পাখি প্রতীকে পেয়েছেন ১৮ হাজার ৫শ ৬০ ভোট। তিনি লাউতা ইউপি’র সাবেক চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগ নেতা।

ফেঞ্চুগঞ্জ উপজেলা পরিষদের ৩ চেয়ারম্যান পদে ১৩ জন প্রার্থী ছিলেন। এর মধ্যে চেয়ারম্যান পদে ৫ জন, ভাইস চেয়ারম্যান (পুরুষ) পদে ৫ জন এবং মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে ৩ জন ভোটযুদ্ধে ছিলেন। এর মধ্যে চেয়ারম্যান পদে আনারস প্রতীকে নির্বাচন করা ফেঞ্চুগঞ্জ উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি আশফাকুল ইসলাম সাব্বির ১২ হাজার ৫শ ৫৮টি ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী হলেন কাপ পিরিচ প্রতীকে নির্বাচন করা উপজেলা পরিষদের বর্তমান চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা নুরুল ইসলাম। তাঁর প্রাপ্ত ভোট সংখ্যা ১২ হাজার ৪টি।

বালাগঞ্জ উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে ৩ পদে প্রার্থী সংখ্যা ছিলেন ১১ জন। এর মধ্যে চেয়ারম্যান পদে ৩ জন, পুরুষ ভাইস চেয়ারম্যান পদে ৫ জন ও মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে ৩ জন প্রার্থী লড়েছেন। এর মধ্যে আনারস প্রতীক নিয়ে নির্বাচন করা বালাগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মো. আনহার মিয়া ২০ হাজার ৮শ ৩৪ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী কাপ পিরিচ প্রতীকে বালাগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মো. মোস্তাকুর রহমান মফুর পেয়েছেন ১৮ হাজার ৬শ ৮৬টি ভোট।